অন্যান্য

ছেলের সাথে বোরকা পরে ক্রিকেট খেলার ভাইরাল ছবি নিয়ে কী বলছেন মা ঝর্ণা আক্তার

রাজধানী ঢাকায় পল্টন এলাকার একটি মাঠে বোরকা পরিহিত এক মায়ের সন্তানের সাথে ক্রিকেট খেলার কিছু ছবি ভাইরাল হওয়ার পর তিনি বলেছেন, পুরো ঘটনায় তিনি খুব খুশি।

তবে মা ঝর্ণা আক্তার বলেছেন, যারা এর সমালোচনা করছেন তারা ভুল করছেন কারণ তারা বিষয়টি বুঝতে পারছেন না।

বিবিসি বাংলাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, সন্তানের আবদার রক্ষা করে তাকে আনন্দ দেওয়ার জন্যই তিনি বোরকা পরেও ক্রিকেট খেলেছেন।

ছেলের সাথে মা ঝর্ণা আক্তারের ব্যাট ও বল করার কিছু ছবি জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ার পর ছবিগুলো সোশাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে পড়ে এবং এনিয়ে গত তিন দিন ধরে তুমুল আলোচনা চলছে।

খেলা ছাড়াও বেশিরভাগ মন্তব্যই মায়ের বোরকা নিয়ে। কেউ বলছেন ছবিতে তারা বাংলাদেশের মাকে খুঁজে পাচ্ছেন না, আবার কেউ বলছেন, পোশাক এখানে মুখ্য বিষয় নয় – ছেলের সঙ্গে মায়ের খেলা করার উচ্ছ্বাসই এখানে প্রধান বিষয়।

এসব নিয়ে বিবিসি বাংলার শাকিল আনোয়ার কথা বলেছেন তার সঙ্গে:

ঝর্ণা আক্তার: পুরো বিষয়টাতে আমাদের ফ্যামিলির সবাই খুশি। কথা বুঝছেন না? আমিও খুশি। কেন খুশি – ফুটবলার কাঞ্চন হচ্ছে আমার ভাই। ফ্যামিলিটাই ক্রীড়া জগত। আমার ছেলেটা তো মাদ্রাসায় পড়ে। ওখান থেকে আমি বিকাল চারটা বাজে নিয়ে আসি। আমি ওকে কাজী নজরুল একাডেমিতে ভর্তি করে দিয়েছি। সেদিন আমি মাঠে আগে চলে আসছিলাম। তখন বাচ্চা ইয়ামিন বলতেছে যে আম্মু তুমি ব্যাটিং করো, আমি বোলিং করি।

বিবিসি: আপনি কি এই প্রথম ব্যাট আর বল হাতে নিয়েছেন নাকি আগেও খেলেছেন?

আরও পড়ুনঃ মনসুনের আগে বঙ্গোপসাগরে এরকম ঝড় এই শতাব্দীতে প্রথম বলে ভারতে হুঁশিয়ারি

ঝর্ণা আক্তার: না না, আমি তো বাসার নিচে সবসময় আমার বাচ্চার সাথে খেলতাম। ক্রিকেট, ব্যাডমিন্টন এগুলা খেলতাম।

বিবিসি: আপনার ছেলের সাথে খেলা ছাড়া ছোট বেলায় কি আপনি খেলেছেন?

ঝর্ণা আক্তার: আমিও তো খেলোয়াড়। আমি অ্যাথলেটিক্স খেলতাম। ধানমন্ডি ক্রীড়াতে আমার ইভেন্ট ছিল জ্যাভলিন থ্রো, হাই জাম্প, লং জাম্প। ডিসট্রিক্ট চ্যাম্পিয়ন ছিলাম।

বিবিসি: পত্রিকাতে যে ছবিগুলো ছাপা হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে আপনি বল করছেন। বলের ধরনটা কী ছিল? এটা কি স্পিন, নাকি ফাস্ট বল, নাকি মিডিয়াম পেস?

ঝর্ণা আক্তার: সামনে থেকে যে বলটা মারে না আস্তে ধীরে, আমি ওই বলটা করেছিলাম। ওটাকে স্পিন বলে কিনা জানি না। (হাসি)

বিবিসি: আপনার ছেলে নিশ্চয়ই দেখছে যে মিডিয়া থেকে আপনার সাথে কথা বলা হচ্ছে, ছবি ছাপা হয়েছে। ওর বক্তব্য কী?

ঝর্ণা আক্তার: কী বলবো? ও আমাকে সবসময় বলতো আম্মু আমি যদি বড় ক্রিকেটার হতাম তাহলে তো আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করতে পারতাম। এখন আমি বলতেছি দেখ আল্লাহ যদি দেখা করায় যে কোন মুহূর্তে আল্লাহ তোমাকে দেখা করায় দিতে পারে। আমারে এখন বলতেছে আম্মু এখন তো আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সামনা সামনি কথা বলতে চাই। এখন আমাকে দেখা করায়া দাও। আমাকে বলে।

বিবিসি: আপনাকে নিয়ে যেসব কথাবার্তা হচ্ছে তাতে প্রশংসাই বেশি। অনেকেই বলছেন আপনার পোশাক, আপনার শক্ত ধর্ম বিশ্বাস আপনাকে আটকে রাখেনি। ছেলেকে নিয়ে আপনি প্রকাশ্যে মাঠে ক্রিকেট খেলছেন। আবার অনেকে সমালোচনাও করছেন যে এটা কি আসলে বাংলাদেশের মাঠ যে এরকম পুরো বোরকা পরা নারী ক্রিকেট খেলছে! আপনি এটাকে কীভাবে দেখছেন?

ঝর্ণা আক্তার: যারা সমালোচনা করছে তারা আসলে ভুল করছে। এটা তো খারাপ কিছু না। তারা যদি ভুল বুঝে থাকে তাতে আমার কোন সমস্যা নাই। আমি চাইবো তাদের ভুল সংশোধন আল্লাহ যাতে করে দেয়। এটা বোঝা উচিত একজন সন্তান যখন আবদার করে তখন একটা মা কিন্তু সব ধরনের আবদার রাখতে চেষ্টা করে। আমি বোরকা পরা দেখে সন্তানের আবদার আমি রাখবো না এটা কি হয়? আমি বোরকা কেন আরো যদি ডবল ডবল বোরকা পরতে হয় তারপরও আমি সন্তানের কথা রাখবো। সন্তানের আনন্দ আমি দিয়ে যাবো। এজন্যই আমি মা।

Visit Our Facebook Page : Durdurantonews

Follow Our Twitter Account : Durdurantonews

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − three =

Back to top button
Close